নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁশখালী ঃ—পূর্ব শত্রুতার জেরে বাঁশখালীর পুঁইছড়ি ইউনিয়নের নাপোড়া গ্রামের মীরপাড়ায় শিক্ষক মীর জহিরুল হক পরিবারের ওপর বুধবার (৩ আগষ্ট) দুপুর ১২টায় দুর্বৃত্তরা বাড়ীঘরে ভাংচূর, হামলা ও লুটপাট করেছে।

ওই হামলায় শিক্ষক মীর জহিরুল হক(৫৫), তাঁর ১১ মাস বয়স্ক শিশু নাতনী আরিশা, পুত্রবধূ রেহেনা আক্তার(২৩), মেয়ে তারিন সোলতানা (১৫),ছেলে মীর হানিফ সিকদার (৩২)সহ ৬ জন আহত হয়েছে। তাঁদেরকে বাঁশখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওখান থেকে গুরুতর আহত পুত্রবধূ রেহেনা আক্তারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

দুর্বৃত্তরা হামলার সময় লুটপাট ও ভাংচূর করে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি করেছে। এ ব্যাপারে উত্তর নাপোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মীর জহিরুল হক বাদী হয়ে ১১জনের নাম উল্লেখ করে বাঁশখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।


মামলার বাদী শিক্ষক জহিরুল হক বলেন, জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে বশিরুল হকের সাথে দীর্ঘদিন ধরে আমাদের বিরোধ ছিল। সেই বিরোধের জের ধরে বশিরুলের নেতৃত্বে ১০/১৫জন সশস্ত্র দুর্বৃত্ত বাড়ীঘরে ভাংচূর, হামলা ও লুটপাট করেছে। আমার ১১ মাস বয়স্ক শিশু নাতনি আরিশাকেও আছড়ে ফেলে গুরুতর আহত করেছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক মং থোয়াই হ্লা চাকমা বলেন, ঘটনার ব্যাপারে মামলা হয়েছে। হামলাকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

By cpadmin

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.